২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে স্বামী স্ত্রীকে পিটিয়ে জখম।।

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

নিজস্ব প্রতিবেদক ।। পটুয়াখালী জেলার রাঙ্গাবালীতে জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে মোঃ কামাল হাওলাদার (৩৫) ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৩২) কে মারধর করেছে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীরা বলে অভিযোগ পাওয়া।

গত শনিবার সকাল ১০ টায় নিজ ঘরের সামনে এই ঘটনা ঘটে । আহত হলো ওই থানার চর মন্তজ ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড চরলক্ষী গ্রামের বাসিন্দা মোঃ আনসার হাওলাদার ছেলে ও পুত্রবধূ । বর্তমানে আহতরা বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত সূত্রে জানা যায় ,কামাল হাওলাদারের বোন রেহেনা একই এলাকায় কয়েক বছর পূর্বে ৪০ শতাংশ জমি ক্রয় করে । সেই জমি থেকে ৩০ শতাংশ জমি গত বছর জোরপূর্বক ভাবে একই এলাকার বাসিন্দা আরিফ হাওলাদার গংরা দখল করে ঘর নির্মাণ করে। কামাল হাওলাদারের বোন রেহানার সাথে সুসম্পর্ক থাকায় প্রতিপক্ষ আরিফ ক্ষিপ্ত হয়ে যায় ।

বিভিন্ন সময় কামাল হাওলাদারের পরিবারের উপরে মিথ্যা মামলা ও হুমকি দিয়ে আসছিল আরিফ হাওলাদার গংরা। এ নিয়ে উভয়ের মাঝে দ্বন্দ্ব বিরাজমান ছিল। ঘটনা দিন আরিফ হাওলাদার গংরা পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে কামাল হাওলাদারের ঘরে প্রবেশ করে এ হামলা করে । এসময় আরিফ হাওলাদার, কবির হাওলাদার, ধলাই, জাহিদুল,অনিক,খলিল চৌকিদার, ফোরকান, সাবিনা সহ অজ্ঞাত ৪/৫ জন সন্ত্রাসীরা এ হামলা করে। এ সময় দাঁড়ালো অস্ত্রের আঘাতে কামাল হাওলাদারের হাত ভেঙে যায় ও সারা শরীরে নীলা ফুলা জখম হয় । তার চিৎকার শুনে স্ত্রী ফাহিমা বেগম ছুটে আসলে তাকেও মারধর ও শ্লীলতাহানির তাদের চেষ্টা করে। এ সময় সন্ত্রাসীরা ২ লক্ষ টাকা, মোবাইল, কানের ঝুমকা, চেইন নিয়ে যায় এবং ঘর দুয়ার ভাঙচুর করে।

পরের স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে । সেখানে কামাল হাওলাদারের অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য শেবাচিমে প্রেরণ করে।

এ বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও আহতের স্বজনরা আরো জানান।

সর্বশেষ