২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

সিলেটকে টানা পঞ্চম হারের স্বাদ দিয়ে জয়ে ফিরলো বরিশাল

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

অনলাইন ডেস্ক ::: কিছুতেই কিছু হচ্ছে না সিলেট স্ট্রাইকার্সের। মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্ব ঘরের মাঠে গ্যালারি উপছেপড়া দর্শক সমর্থনও বদলাতে পারছে না সিলেটের ভাগ্য। বিপিএলের চলতি আসরে টানা পঞ্চম ম্যাচে তারা পেলো হারের স্বাদ।

সিলেটকে ৪৯ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচ পর জয়ের ধারায় ফিরেছে তামিম ইকবালের ফরচুন বরিশাল। চলতি আসরে এটি তাদের দ্বিতীয় জয়।

১৮৭ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে মারমুখী শুরু করেছিল সিলেট। যদিও নাজমুল হোসেন শান্ত আরও একবার ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন। ৭ বলে ৯ করে মেহেদী হাসান মিরাজের শিকার হন শান্ত। এরপর শামসুর রহমান ২৩ বলে ২৫ রানের ইনিংস খেলে ফেরেন।

আগেভাগে নেমে সুবিধা করতে পারেননি মাশরাফি। ৩ বলে ২ করেন সিলেট অধিনায়ক। এরপর জাকির হাসান আর বেনি হাওয়েলের জুটিতে অনেকটা সময় আশা জিইয়ে ছিল স্বাগতিকদের। ১৪তম ওভারে ৩ উইকেটেই ১১০ রান ছিল তাদের। সেখান থেকে টানা তিন ওভারে তিন উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে সিলেট।

জাকির ৩৪ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় করেন ৪৬ রান। হাওয়েল ১৯ বলে করেন ২৪। তারা দুজন আউট হওয়ার পর সিলেট আর দাঁড়াতে পারেনি। ১৭.৩ ওভারে ১৩৭ রানে অলআউট হয় মাশরাফির দল।

বরিশালের মোহাম্মদ ইমরান ২৯ রানে নেন ৪টি উইকেট।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করার জন্য সিলেট অধিনায়ক মাশরাফি আমন্ত্রণ জানান বরিশালের তামিমকে। মাহমুদউল্লাহর ২৩ বলে ঝোড়ো ফিফটিতে ভর করে ৫ উইকেটে ১৮৬ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় ফরচুন বরিশাল।

আহমেদ শেহজাদ ৪১ বলে খেলেন ৬৬ রানের ইনিংস। ২৪ বলে ৫১ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ৭টি বাউন্ডারির সঙ্গে ২টি ছক্কার মার মারেন রিয়াদ।
টস হেরে ব্যাট করতে নামার পর শুরুতেই তামিম ইকবাল, প্রিতম কুমারের উইকেট হারিয়ে কিছুটা বিপদে পড়ে বরিশাল।

তামিম করেন ২ রান। প্রিতম আউট হন ১রানে। তবে শোয়েব মালিকের পরিবর্তে খেলতে আসা আহমেদ শেহজাদ ঘাটতি পুষিয়ে দেন। সৌম্য সরকারকে নিয়ে ৫০ রানের জুটি গড়েন তিনি।

১৭ বলে ২০ রান করে আউট হন সৌম্য। আহমেদ শেহজাদ করেন ৪১ বলে ৬৬ রান। ৯টি বাউন্ডারির সঙ্গে ২টি ছক্কার মার মারেন তিনি। মুশফিকুর রহিম করেন ১৯ বলে ২২ রান। শেষ দিকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং মেহেদী হাসান মিরাজ ঝড় তোলেন। ২৪ বলে ৫১ রান করে রিয়াদ এবং ৬ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত ছিলেন মিরাজ।

সর্বশেষ