১৮ আগস্ট থেকে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সাথে বৈঠক বিপিএল গভর্নিং কমিটির

১৮ আগস্ট থেকে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সাথে বৈঠক বিপিএল গভর্নিং কমিটির

অনলাইন ডেস্ক : আগেই জানা, পুরোনো সব কিছু বাদ। আগের ফ্র্যাঞ্চাইজিদের নতুন করে চার বছরের জন্য বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সাথে চুক্তি করতে হবে। অর্থনৈতিক শর্ত পূরণে কি করণীয়? ফ্র্যাঞ্চাইজিদের চার বছরের চুক্তি করতে হলে এককালীন কত টাকা দিতে হবে? বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সাথে চুক্তিতে কি কি বিষয় থাকবে? চুক্তির শর্ত, প্লেয়িং কন্ডিশন, বাইলজ এবং আনুষাঙ্গিক বিষয়গুলোও একদম লিখিতভাবে জানানো হবে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের। তারপর নতুন করে দল সাজানোর কাজে হাত দেয়ার প্রশ্ন।

এখন প্রশ্ন হলো- বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল কি ফ্র্যাঞ্চাইজিদের নতুন করে চুক্তি, নিবন্ধনের বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে? হ্যাঁ, বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সূত্র নিশ্চিত করেছে-তিন চার দিন আগেই ফ্র্যাঞ্চাইজিদের কাছে চিঠি চলে গেছে।

উল্লেখ্য, চলতি মাসেই হঠাৎ এক আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন ডেকে ফ্র্যাঞ্চাইজদের সাথে পুরোন চুক্তি বাতিলের পাশাপাশি দলগুলোকে নতুন করে চুক্তি-নিবন্ধন এবং তারপর দল গঠনের কাজ তথা ক্রিকেটার ও কোচ দলে ভেড়ানোর কাজে হাত দেয়ার কথা বলা হয়।

সেদিনই জানানো হয়েছিল, ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের চিঠি দিয়ে সব জানানো হবে। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সূত্র জানিয়েছে, সেই সময়েই দলগুলোর মালিক মানে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি দেয়া হয়ে গেছে। সেটাই শেষ নয়। পরবর্তী কার্যক্রমও নাকি চূড়ান্ত।

বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সূত্র জানিয়েছে, ঈদের ছুটি শেষে আগাামী ১৮ আগস্ট থেকে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সাথে বৈঠকে বসবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। কবে কোন দলের ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সাথে বসা হবে, তা দিনক্ষণও চূড়ান্ত।

১৮ আগস্ট বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল বসবে খুলনা টাইটান্স ও রংপুর রাইডার্সের মালিক পক্ষর সাথে। ঐ দুই ফ্র্যাঞ্চাইজির সাথে আনুষ্ঠানিক বৈঠকের পর দিন মানে ১৯ আগস্ট ঢাকা ডায়নামাইটস ও রাজশাহী কিংসের সাথে আলোচনায় বসবেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল কর্তারা। তারপর ২০ আগস্ট তাদের বৈঠক হবে চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ফ্র্যাঞ্চাইজির সাথে।

২০ জুন সন্ধ্যায় বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল কর্তারা বসবেন সিলেট ফ্র্যাঞ্চাইজির সাথে। তবে সেটা খুলনা, রংপুর, ঢাকা, রাজশাহী আর কুমিল্লার মত চুক্তির শর্ত ও আনুষাঙ্গিক বিষয় নিয়ে নয়। সিলেটের কাছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের এক কোটি টাকা পাওনা, তার পাশাপাশি ক্রিকেটার ও কোচদের বেতন ও বাকি। সেই পাওনা শোধ করার বিষয়ে আগে সিলেট ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সাথে কথা বলবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। সিলেটকে আগে সমুদয় পাওনা পরিশোধের কথা বলা হবে। তারপর তাদের সাথে নতুন চুক্তি-নিবন্ধনের প্রশ্ন।

তাই সিলেটের ফ্র্যাঞ্চাইজির সাথে বৈঠকের ধরণ, কথাবার্তা ও সিদ্ধান্ত-সবই হবে ভিন্ন। এর বাইরে থাকলো কেবল চিটাগাং ভাইকিংস। যেহেতু চিটাগাংয়ের পুরোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি ডিবিএল আগেই জানিয়ে দিয়েছে, তারা আর দল পরিচালনা করবে না। তাই তাদের সাথে বসার প্রশ্নই আসেনা।

চিটাগাং ভাইকিংসের পুরোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি ডিবিএলের বদলে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি চেয়ে বিসিবি যে দরপত্র দিয়েছিল, তার জবাবে আগ্রহী কোন ফ্র্যাঞ্চাইজির আবেদন পত্র জমা পড়লে ২১ বা ২২ আগস্ট তাদের সাথেও বসবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। তারপর পুরো প্রক্রিয়া নতুন ভাবে শুরু হবে।

99 total views, 3 views today

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Comments are closed.







© All rights reserved © 2017 Barisal Bani