চলতি মাসে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৪৩ হাজার

চলতি মাসে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৪৩ হাজার

অনলাইন ডেস্ক : গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত ১১৭৯ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে রাজধানীতে ৫৭০ এবং বিভিন্ন জেলায় ৬০৯ জন রোগী রয়েছেন। চলতি মাসের ২৪ দিনে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ৪৩ হাজার ৭৫৬ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এটি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাব।

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) হিসাবে এই পর্যন্ত ৪৭ জন মারা গেছে। প্রতিষ্ঠানটির ডেথ রিভিউ কমিটিতে ৮০ জনের মৃত্যুর তথ্য জমা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডা. সানিয়া তহমিনা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত নতুন ১ হাজার ১৭৯ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

একই সময়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৯২৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আগের তুলনায় হাসপাতালে ভর্তি হওয়া নতুন রোগী কমেছে ১৮ শতাংশ। ডেঙ্গু রোগে আক্রান্তদের ৯১ শতাংশ চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরেছেন।

সারাদেশের ডেঙ্গুর হালনাগাদ তথ্য সংগ্রহ করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন ও কন্ট্রোল রুম। ঢাকার ১২টি সরকারি ও ২৯টি বেসরকারি হাসপাতালসহ মোট ৪১ প্রতিষ্ঠান থেকে ডেঙ্গু রোগীর তথ্য পাঠানো হয়। এর বাইরে সারাদেশের ৬৪টি জেলা সিভিল সার্জনদের অফিস থেকে তথ্য পাঠানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে গতকাল পর্যন্ত ৬২ হাজার ২১৭ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। এর মধ্যে জানুয়ারিতে ৩৮, ফেব্রুয়ারিতে ১৮, মার্চে ১৭, এপ্রিলে ৫৮, মেতে ১৯৩, জুনে ১ হাজার ৮৮৪, জুলাইয়ে ১৬ হাজার ২৫৩ জন এবং আগস্টে ৪৩ হাজার ৭৫৬ জন। এসব রোগীর ৫৫ হাজার ৮৮১ জন চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন এবং বাকি ৬ হাজার ২৮৯ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সরকারি হিসেবে এ পর্যন্ত ৪৭ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে এপ্রিলে ২, জুনে ৫, জুলাইয়ে ২৮ এবং আগস্ট ১২। তবে হাসপাতালগুলোর মৃত্যুর তথ্যমতে এ সংখ্যা কয়েকগুণ বেশি।

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তথ্য পাঠানো হয় আইইডিসিআরের ডেথ রিভিউ কমিটিতে। কমিটি মৃত্যুর বিষয়টি যাচাই-বাছাই শেষে ঘোষণা দিয়ে থাকে। আইইডিসিআরের হিসাবে এ পর্যন্ত ৪৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। যদিও ৮০ জনের মৃত্যুর তথ্য জমা হয়েছে আইইডিসিআরে। তবে হাসপাতালের মৃত্যুর তথ্যমতে এ সংখ্যা দেড়শর বেশি।

৫ মাসের শিশুসহ ৩ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে জারিফ নামে পাঁচ মাস বয়সী এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. এবিএম শামসুজ্জামান সেলিম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সহকারী পরিচালক জানান, শিশুটি ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গাজীপুরের একটি ক্লিনিকে দুদিন চিকিৎসাধীন ছিল। শনিবার ভোর ৫টা ১০ মিনিটের দিকে তাকে মমেক হাসপাতালে নিয়ে এলে আধঘণ্টা পরই মারা যায়। তিনি জানান, এ পর্যন্ত তাদের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন চার ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

পিরোজপুরে মমতাজ বেগম (৪৫) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকায় নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। মমতাজ বেগম পিরোজপুর সদর উপজেলার তেজদাসকাঠী গ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রী। এক সপ্তাহ আগে মমতাজ ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হন।

আবুল কালাম (৩০) নামে ঢাকার কেরানীগঞ্জের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গত শুক্রবার রাতে রাজধানীর মিটফোর্ড হাসপাতালে মারা যান তিনি।

105 total views, 3 views today

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Comments are closed.







© All rights reserved © 2017 Barisal Bani