মুলাদীতে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা

মুলাদীতে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বরিশালের মুলাদী উপজেলায় কলেজে যাওয়ার পথে এক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানি ও গণধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রোববার (২৫ আগস্ট) পুরে নির্যাতিতা ওই কলেজছাত্রী বাদী হয়ে মুলাদী থানায় ছয় বখাটেকে আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন।

মুলাদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল আহসান জানান, শনিবার (২৪ আগস্ট) দিনগত রাতে মুলাদী সৈয়দ বদরুল হোসেন ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী ও বাটামারা ইউনিয়নের পূর্ব তয়কা গ্রামের ফারজানা মিম বাদী মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার অভিযুক্ত আসামিরা হলেন- শফিপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা আজিজুল সরদার, সাগর, সালাউদ্দিন, রাজিব, ফয়সাল ও কাওছার হোসেন। তারা শফিপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ বালিয়াতলী ও বোর্জমহন গ্রামের বাসিন্দা।

মামলার বরাত দিয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আউয়াল জানান, শনিবার সকাল ৯টার দিকে কলেজের যাওয়ার উদ্দেশে নিজ বাড়ি থেকে রওনা হন ওই ছাত্রী। কলেজে যেতে হলে ট্রলারে স্থানীয় শফিপুর খেয়াঘাট পার হয়ে যেতে হয়। কিন্তু তিনি শফিপুর খেয়াঘাটে পৌঁছানোর আগেই ট্রলার ছেড়ে দেয়। এসময় ঘাটে অবস্থানরত আজিজুল সরদার, সাগর ও সালাউদ্দিন তাকে তাদের সঙ্গে নিয়ে যায়। পথিমধ্যে বোর্জমহন এলাকায় পৌঁছে আজিজুল তার নানুর সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কথা বলে নানা বাড়ির পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে আজিজুল, সাগর, সালাউদ্দিন, রাজিব, ফয়সাল ও কাওছার তাকে গণধর্ষণের চেষ্টা করে।

এসময় তার ডাক-চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। পরে ওই কলেজছাত্রী বাড়ি ফিরে তার পরিবারকে ঘটনাটি জানান।

132 total views, 3 views today

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Comments are closed.







© All rights reserved © 2017 Barisal Bani