গৌরনদীতে ছাত্রলীগ-যুবলীগের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৫

গৌরনদীতে ছাত্রলীগ-যুবলীগের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৫

গৌরনদী প্রতিনিধি : বরিশালের গৌরনদী উপজেলার চাঁদশী ইউনিয়নের নরসিংহলপট্রি গ্রামের ৮ জুয়ারিকে গ্রেপ্তারের ঘটনাকে কেন্দ্র কওে মঙ্গলবার বিকেলে বিল্লগ্রাম বাজারে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের দুই পক্ষের মধ্যে হামলা পাল্টা- হামলার ঘটনা ঘটে। এসময় একটি দোকান ভাঙচুর তছনছসহ ৫জন আহত হয়। গুরুতরভাবে রক্তাক্ত জখম আব্দুস সালাম সরদারকে (৩০) বরিশাল শের ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও ছাত্রলীগ নেতা জাহিদুল, তার সহকর্মী মাইনুল ইসলাম ও আরফি হোসেনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয় লোকজন, আহত ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গৌরনদী মডেল থানার একদল পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার বিকেল ৩টার দিকে উপজেলার চাঁদশী ইউনিয়নের নরসিংহলপট্রি গ্রামে অভিযান চালিয়ে জুয়া খেলায় অবস্থায় কাইয়ুম হোসেন (৫০), নাঈম ইসলাম (২২), মামুন (৪০), সাব্বির (২২)সহ ৮ জুয়ারিকে আটক করে থানায় নিয়ে যান। গৌরনদী বিশ্ব বিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সদস্য ও কলেজ ছাত্র সংসদের জিএস মোঃ জাহিদুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, জুয়ারি গ্রেপ্তারের ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছুই জানি না। এ ঘটনায় আমাকে দায়ি করে জুয়ারির স্বজনরা। আমি সহকর্মী ছাত্রলীগ নেতা মাইনুল ইসলাম সিকদারকে (২৫) সঙ্গে নিয়ে বিল্লগ্রাম বাজারে আসার পথে মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে বিল্লগ্রাম মৃধা বাড়ির সামনে পৌছলে সন্ত্রাসী কালা সালাম সরদার (২৮) কালু সরদার (৩০) নেতৃত্বে কয়েকজন সন্ত্রাসী লাঠিসোটা ও ধারাল অস্ত্র নিয়ে আমার উপর আকস্মিকভাবে হামলা চালায়। এ সময় আমি মটরসাইকেল থেকে মাটিতে পরে গেলে হামলাকারী সন্ত্রাসীরা আমাকে ও সহকর্মী মাইনুল ইসলামকে পিটিয়ে আহত করে। এ সংবাদ ছড়িয়ে পরলে আমার সমর্থকরা বিকেল ৫টায় বিল্লগ্রাম বাজারে গিয়ে সন্ত্রাসী কালা সালামের নাম ধরে ডাক চিৎকার দিয়ে সালাম ও তার সহকর্মীকে খুজতে থাকে। এ সময় বিল্লগ্রাম গ্রামের আব্দুল লতিফ সরদারের পুত্র আব্দুস সালাম সরদার (২৮) দৌড় দিলে আমার সমর্থকরা ভুল করে অনাকাঙ্খিতভাবে তাকে মারধর করেছে। নিরহ সালামের ওপর হামলায় তিনি দুঃখ প্রকাশ করে চিকিৎসার সমস্ত ব্যয়ভার নিয়েছেন বলে জানান।

হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে যুবলীগ সদস্য ঝন্টু বেপারী, কালা সালাম সরদার ও কালু সরদার পাল্টা অভিযোগ করেন, ছাত্রলীগ নেতা জাহিদের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে বিকেল ৫টার দিকে বিল্লগ্রাম বাজােেরর ব্যবসায়ী ও নিরহ মানুষের ওপর হামলা চালিয়ে আমার ফার্মেসী ব্যাপক ভাঙচুর, মালামাল তছনছ ও তিন জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করেছে। রক্তাক্ত জখম আব্দুস সালাম সরদারকে (৩০) বরিশাল শের ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বিল্লগ্রাম বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবদুল হামিদ বেপারী জানান, বাজারে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ভাঙচুর ও ব্যবসায়ীকে মারধর করার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিকেল থেকে গতকাল বুধবার পর্যন্ত দোকানপাট বন্ধ রেখে বিক্ষোভ মিছিল ও ধর্মঘট কর্মসূচী পালন করা হয়। গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম ছরোয়ার জানান, নিজেদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এর জন্য একে অপরকে দায়ি করেছে। বিষয়টি সাধারন ডায়রী করা হয়েছে।

132 total views, 3 views today

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Comments are closed.







© All rights reserved © 2017 Barisal Bani