রবিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২০, ০৮:০০ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বামনায় কৃষকের ধান বিক্রিতে ভোগান্তি বাংলাদেশ জলসীমায় ২৬ ভারতীয় জেলে আটক বরিশালে আইনজীবি সমিতির নির্বাচনে সদস্য পদপ্রার্থী ইশতিয়াক কবির রকি,সকলের দোয়া কামনা সুরভী-৯ থেকে নিখোঁজ হওয়া কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার চরফ্যাশনে বালুবাহী জাহাজ থেকে পড়ে সুকানী নিখোঁজ বুখাইনগরে ভেজাল বিরোধী অভিযানে ৫ প্রতিষ্ঠানকে অর্থদন্ড বাবুগঞ্জ-মুলাদীতে সারওয়ার-নুরজাহান ফাউন্ডেশন’র উদ্দ্যেগে শীতবস্ত্র বিতরণ বরিশালে রাতের আধারে মোটরসাইকেলে অগ্নিসংযোগ পাথরঘাটায় স্কুল ফাঁকি দিতে গিয়ে পরীক্ষার্থী আহত কৃষিবিদ আঃ মান্নান এমপি মারা গেছেন মাদারীপুরে ৪ জন উদ্যোক্তাকে সংবর্ধনা প্রদান বর্তমান সরকারের আমলে দেশের ক্রীড়াঙ্গনে ব্যপক উন্নয়ন হয়েছে-গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ঝালকাঠি রির্পোটাস ইউনিটির নতুন কমিটি গঠন চরফ্যাশনে অগ্নিকান্ডে ২২ দোকান পুড়ে ছাই ‘র‌্যাব’ এর একমাত্র নারী সিও আতিকা ইসলাম জাসদ নেতা মোহসীনের প্রচেষ্টায় কাটাদিয়া খেয়াঘাটে আসছে ফেরী চরফ্যাশনে ২০ বছরের পুরনো বন্ধুদের মিলন মেলা “নিজেই নিজের শত্রু” : — মোহাম্মদ এমরান বরগুনায় ছেলে না হওয়ায় ৪০ দিনের মেয়েকে পানিতে ফেলে হত্যা উজিরপুরে ডাঃ আকবর হোসেন মিঞার স্মরনে আলোচনা সভা
বানারীপাড়ায় ট্রিপল মার্ডার , ভগ্নিপতি সহ তিনজনের লাশ উদ্ধার

বানারীপাড়ায় ট্রিপল মার্ডার , ভগ্নিপতি সহ তিনজনের লাশ উদ্ধার

রাহাদ সুমন,বিশেষ প্রতিনিধি॥
বানারীপাড়ায় প্রবাসীর বৃদ্ধা মা ও ভগ্নিপতি সহ একই পরিবারের তিনজন হত্যাকান্ডের শিকার হয়েছেন।উপজেলার সলিয়াবাপুর ইউনিয়নের সলিয়াবাকপুর গ্রামের হাওলাদার বাড়িতে এ নৃশংস হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে।শনিবার ভোরে ওই বাড়ির কুয়েত প্রবাসী হাফেজ আ. রবের বাসা থেকে তার বৃদ্ধা মা মরিয়ম বেগম(৭৫),স্বরূপকাঠি থেকে বেড়াতে আসা ভগ্নিপতি সাবেক শিক্ষক সফিকুল আলম (৬৫)ও বাড়ির পুকুর থেকে খালাতো ভাই ইউসুফের (২২) হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করা হয়। জানা গেছে সলিয়াবাপুর গ্রামের মৃত নাজির আহম্মেদ হাওলাদারের স্ত্রী মরিয়ম বেগম,তার কুয়েত প্রবাসী ছেলে হাফেজ আ. রবের স্ত্রী মিশরাত জাহান মিশু,দুই শিশু নাতনি,বোনের ছেলে ইউসুফ,অপর ছেলে হারুনের মেয়ে চাখার সরকারী ফজলুল হক কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী আছিয়া আক্তার ও বেড়াতে আসা মেয়ে জামাতা সফিকুল আলম শুক্রবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে রাতের খাবার (রুটি ও ডিম) খেয়ে একতলা বসত বিল্ডিংয়ের নিজ নিজ কক্ষে ঘুমিয়ে পড়েন্ । ফজরের আজানের শব্দ শুণে কলেজ ছাত্রী আছিয়া আক্তার নামাজ পড়ার জন্য ঘুম থেকে জেগে উঠে তার পাশে ঘুমানো দাদী মরিয়ম বেগমকে দেখতে না পেয়ে খুঁজতে গিয়ে দেখতে পান বেলকনিতে অচেতন অবস্থায় তিনি পড়ে আছেন। এসময় তার ডাক চিৎকার শুনে পাশের কক্ষে থাকা মরিয়ম বেগমের পুত্রবধু মিশু আসেন এবং দু’জন মিলে মরিয়ম বেগমের নিথর দেহ বেলকনি থেকে শয়নকক্ষের খাটের ওপর তোলেন। আছিয়া আক্তার জানান দাদীর বিষয়টি ফুফা সফিকুল আলমকে জানাতে তার কক্ষে গেলে দেখতে পান তিনিও তার কক্ষে খাটের ওপর মৃত অবস্থায় পড়ে আছেন। এরপর বাড়ির অন্যদের ডাকা হলে তারা খোঁজাখুঁজি করে বাড়ির পুকুর থেকে ইউসুফের হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করেন। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক স্থানীয় সংসদ সদস্য মো. শাহে আলম, বরিশালের অতিরিক্ত ডিআইজি এহেসানউল্লাহ্,বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম বিপিপিএম(বার),পুলিশ সুপারের পদোন্নতি পাওয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আ.রকিব,বানারীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শিশির কুমার পাল ও ইন্সপেক্টর (তদন্ত) জাফর আহম্মেদ ঘটনাস্থলে ছুঁটে যান। পরে বরিশাল থেকে র‌্যাব, পিবিআই ও সিআইডির কর্মকর্তারা এসে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।এসময় স্থানীয় সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. শাহে আলম নিহতদের পরিবারের সদস্যদের শান্তনা দেন এবং প্রশাসনকে তিনজনের মৃত্যু রহস্য উদঘাটন ও এর সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারের নির্দেশ দেন।এ প্রসঙ্গে বরিশাল জেলা পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম বিপিএম(বার) জানান তিনটি লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে তিনি তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে ছুঁটে আসেন।তিনজনের মৃতদেহের নাক ও কান থেকে রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাদের বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ কিংবা আঘাত করে হত্যা করা হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন তাদের মৃত্যু রহস্য উদঘাটন ও জড়িতদের গ্রেফতারে র‌্যাব, পিবিআই ও সিআইডি সহ সম্মিলিতভাবে কাজ করছে পুলিশ। প্রবাসীর স্ত্রী মিশু জানান তার কক্ষের স্টিলের আলমিরার ড্রয়ার থেকে বেশ কিছু স্বর্নালঙ্কার ও তিনটি মোবাইল ফোন নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ওই তিনটি মোবাইলের মধ্যে একটি তার ও অপর দু’টি হত্যাকান্ডের শিকার হওয়া শাশুড়ি ও ননদ জামাতার। স্বর্নালঙ্কার ও মোবাইল ফোন নিয়ে গিয়ে হত্যাকান্ডের বিষয়টি ডাকাতি থেকে হয়েছে এটা প্রমানের চেষ্টা করা হতে পারে।অছিয়া আক্তার জানান রাতে বিল্ডিংয়ের সব দরজা বন্ধ করে ঘুমানো হলেও ভোরে মূল দরজা ও ছাদের চিলে কোঠার দরজা খোলা পাওয়া যায়। তার এ বক্তব্য থেকে ধারণা করা হচ্ছে শুক্রবার গভীর রাতে দরজা খুলে দিয়ে ঘাতকদের ভিতরে প্রবেশের সুযোগ করে দেওয়া হতে পারে।এর ফলে ট্রিপল মার্ডারের কারণ হিসেবে প্রাথমিকভাবে পারিবারিক বিরোধ ও পরকীয়া প্রেম সংক্রান্ত কোন বিষয় থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।এ হত্যাকান্ডে প্রবাসীর স্ত্রী মিসরাত জাহান মিশু ও কলেজ ছাত্রী আছিয়া আক্তারের কোন সংশ্লিষ্টতা আছে কিনা সেটা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।তাদের দু’জনকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য আটকও করা হতে পারে বলে জানা গেছে। এদিকে এ ঘটনায় সন্দেহজনকভাবে ওই বিল্ডিংয়ের নির্মাণ শ্রমিক ঝালকাঠির নলছিটির জাকির হোসেনকে জিঙ্গাসাবাদ করেছে পুলিশ। বানারীপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শিশির কুমার পাল জানান এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি ও মৃত্যু রহস্য উদঘাটনে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহগুলো বরিশাল শেবাচিম হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ###

318 total views, 3 views today

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন







© All rights reserved © 2014 barisalbani
Design By Rana