মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৭:৪৩ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বিশ্বকাপ বিজয়ী তৌহিদ হৃদয়কে গণসংবর্ধনা অস্তিত্ব সংকটে বাকেরগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী ’শ্রীমন্ত নদী’ আশি পেরিয়েও আনিসুজ্জামানের কর্মব্যস্ত জীবন বরিশালে টক অব দ্যা টাউন ‘নানক-জাহিদ বৈঠক’ বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির দুই দশক পূর্তি উৎসব কাল নানক-জাহিদ বৈঠকঃ বরিশাল আ’লীগে তোলপাড় ! বরিশালে হাওয়ায় দুলছে আমের সোনালী মুকুল: বাম্পার ফলনের আশা পিরোজপুরের শিক্ষিকাকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টায় যুবকের কারাদন্ড বরগুনায় চীনফেরত শিক্ষার্থী জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় ৩দিন ব্যাপী ওয়াজ মাহফিল মাদারীপুরে এসএসসি পরীক্ষার্থীর মাথা রক্তাক্ত করলেন শিক্ষক উজিরপুরে মাদ্রাসার দাতা সদস্যকে কুপিয়ে জখম নলছিটিতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু উজিরপুরে বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে আগুন নলছিটিতে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু মৃত্যুর কাছে হেরে গেলেন সাংবাদিক আতিকের পিতা পিরোজপুরে ভূয়া পাসপোর্ট করতে এসে এক রোহিঙ্গা যুবক আটক ভাণ্ডারিয়ায় পাসপোর্ট করাতে এসে রোহিঙ্গা নাগরিক আটক আগৈলঝাড়ায় অপহৃতা স্কুল ছাত্রী উদ্ধার, অপহরনকারী গ্রেফতার গৌরনদীতে স্কুল বন্ধ রেখে বনভোজনে হিরিক
এগুলো কি সংগঠন নাকি জঞ্জাল!

এগুলো কি সংগঠন নাকি জঞ্জাল!

মেহরাজ রাব্বি:

ধান্ধাবাজি ও অপ-সাংবাদিকতা দিয়ে প্রকৃত একজন গনমাধ্যমকর্মীর সঠিক মুল্যায়ন অর্জন ও তার মর্যাদাকে রক্ষা করা যাবে না। অনৈতিকতা দিয়ে নৈতিকতার যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়া যায় না৷ এটা নষ্ট অপসাংবাদিকেরা বুঝতে না পারলেও, গণমাধ্যমের প্রতি শতভাগ বিশ্বস্ত, সুস্থ্য, সচেতন, বিবেকবান সকল সিনিয়র সাংবাদিকদের বিশেষভাবে ভাবতে হবে৷

কেউ অর্থ, বিত্ত, ক্ষমতা, আয়েস, বিলাসের জন্য প্রকৃত কিছু সাংবাদিকদেরকে নিকটতম সাথে রেখে বেঈমানী করতেও পারে কারণ তা উদ্দেশ্য ধান্ধা। প্রচলিত সাংবাদিক সংগঠনগুলোর সংবাদকর্মীরা নিজেরাই তাদের প্রিয় সংগঠনগুলো কেমন তা জানে৷ তারাও তাদের মত সুবিধা হাতাতে চায় বলেই গুনগত সাংবাদিক সমর্থক হয়ে আছে৷ এর বাইরে শুধু বিভ্রান্তির জেরেই বিশাল অংশ এদের কারো না,কারো পিছনে দাড়ায়। তাতে নিজেদের ভোগান্তির পথই তৈরী হয়। আর চলমান ধারার সাংবাদিক ভন্ডদের আরেক জঘন্য শ্রেণী আছে৷ এরা টিকে আছে দূর্বৃত্ত রাজনৈতিক নেতার আর অপ-সাংবাদিকের মদদে।

কিন্তু এরাই সব নয়। সমাজে যারা সুস্থ্য, স্বাভাবিক বোধবুদ্ধির মানুষ তাদেরই ভাবতে হবে এসব জঞ্জাল পেছনে ফেলে সৎ, সুন্দর, উদার ও প্রগতিশীল ধারায় সুন্দর পেশাদার সাংবাদিক নিয়ে সংগঠনের মধ্যদিয়ে বাস্তবিক কি করা উচিত তা খুঁজে বের করা। নিজেদের ক্ষুদ্রতার স্বার্থকে একটু জলাঞ্জলি দিয়ে হলেও তা করা উচিত নইলে সর্বস্ব জলাঞ্জলী দিয়েই তা বুঝতে হবে। এখনই তার লক্ষণ বর্তমান সাংবাদিক সংগঠনগুলোতে যা ঘটছে তা দেখতে পাচ্ছেন কিন্তু টনক নড়ছে না। আপনারা একটু ভেবে দেখুন তরুন সাংবাদিকরা কার কাছে নিরাপদ?

অপরদিকে একেকজন সাংবাদিক আরেক সাংবাদিককে বলে কতিথ সাংবাদিক,আসলে সে নিজেই জানে না কতিথ মানে কি!আসলে আমরা বলতে পারলেই হলো।খোদ সাংবাদিকদের বুলি আউরানোদের হাতে৷ এখনো সময় আছে নতুবা অন্য ক্ষেত্রে তো মাত্রা ছাড়াবে। তবুও,কেনো আপনি/আপনারা,আমরা, নিশ্চিন্তে চোখবুঝে থাকবেন কোন ধ্যানে?

366 total views, 3 views today

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন







© All rights reserved © 2014 barisalbani
Design By Rana