২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

নোটিশের জবাবের আগেই পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠালেন ভাইস-চেয়ারম্যান

হারুন অর রশিদ, আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি॥
বরগুনার তালতলীতে ক্রয়কৃত বোরাকের ব্যাটারী ডাউন হওয়ার অভিযোগের নোটিশের জবাব দেওয়ার আগেই উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মোস্তাক ও তার কিশোর গ্যাংরা শোরুম ম্যানেজার রফিকুলকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (১০জুন) রাত ৯টার দিকে উপজেলার মালিপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দক্ষিন সদর রোডস্থ মালিপাড়া এলাকায় আল-মদিনা অটো সেন্টার শো-রুম থেকে নাজমুল নামের এক ব্যক্তি একটি অটো-বোরাক কিস্তিতে ক্রয় করেন। কিছুদিন পরে ব্যাটারির সমস্যা দেখিয়ে উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাকের কাছে একটি অভিযোগ করেন। অভিযোগের আলোকে স্থানীয় কিশোর গ্যাং ও ছাত্রদল নেতা উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মোস্তাক উপজেলা পরিষদের প্যাডে আল-মদিনা অটো সেন্টার শো-রুমের ম্যানেজার রফিকুল ইসলামকে সকল ধরণের কাগজপত্র নিয়ে ১০জুন বিকাল ৬টার দিকে ব্যক্তিগত কার্যালয়ে উপস্থিত থাকার নোটিশ প্রদান করেন। ঘটনার দিন বিকাল ৫টার দিকে নোটিশের জবাব দেওয়ার আগেই ভাইস-চেয়ারম্যান তার কিশোর গ্যাংয়ের ৭ সদস্যকে শো-রুমের ম্যানেজার রফিকুল ইসলামকে শো-রুম থেকে উঠিয়ে আনার জন্য পাঠায়। এতে ম্যানেজার রফিক কিছুক্ষন পরে আসার কথা বললে তারা ফেরত আসে। পরে ভাইস-চেয়ারম্যান রাত সাড়ে ৮টার দিকে কিশোর গ্যাং নিয়ে আল-মদিনা অটো সেন্টারের শো-রুমে এসে ম্যানেজার রফিককে মারধর করে তার ব্যাক্তিগত অফিসের দিকে নিয়ে আসে। এসময় শো-রুমে থাকা গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ও নগত ৮৬ হাজার টাকা নিয়ে যায় কিশোর গ্যাংরা। পরে স্থানীয়রা ম্যানেজার রফিককে উদ্ধার করে গুরুতর অবস্থায় আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করেন।
উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক বলেন, আমি ২৮ হাজার ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছি। আমার সাধারণ মানুষকে কেউ কিছু বললে আমি সাংবাদিক তো ভালো জজকেও ছাড় দিবো না।
তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, এবিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ##### তারিখঃ হারুন অর রশিদ

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ