৬ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আমতলীতে প্রথমবারের মতো দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নারী চেয়ারম্যান হলেন মালা

হারুন অর রশিদ,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধিঃ সদ্যসমাপ্ত ইউপি নির্বাচনে জেলায় প্রথমবারের মতো আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বরগুনার আমতলী উপজেলার আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন পারভীন মালা।

সোহেলী পারভীন মালা জেলার প্রথম নারী চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন পাঁচ পুরুষ প্রতিদ্বন্দ্বীর সঙ্গে।
আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকে পাঁচ হাজার ২০০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন সোহেলী পারভীন মালা। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আবুল কালাম আজাদ আনারস প্রতীকে পেয়েছেন তিন হাজার ৬৬২ ভোট।

সোহেলী পারভীন মালা আমতলী উপজেলার আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের তিনবারের সাবেক চেয়ারম্যান প্রায়ত একেএম নুরুল হক তালুকদারের স্ত্রী। একই সাথে তিনি আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। এছাড়াও তিনি পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের টানা তিনবারের ইউপি চেয়ারম্যান আবু হাসনাত আব্দুল্লাহ এর মেয়ে।

দুই কন্যার জননী সোহেলী পারভীন মালার স্বামী মারা যাওয়ায় পারিবারিক ঐতিহ্যের পাশাপাশি স্থানীয় ভোটারদের অনুরোধে এই নির্বাচনে প্রার্থী হন তিনি। এরপর পান আওয়ামী লীগের মনোনয়ন।
স্থানীয়রা বলেন, ভোটের মাঠে প্রথম হলেও স্বামী প্রয়াত নুরুল হক তালুকদার একাধিকবার নির্বাচনে অংশ নেয়ায় স্ত্রী হিসেবে প্রচারে মালার সক্রিয় অংশগ্রহণ ছিল। সে অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে এবার নিজ নির্বাচনি প্রচার-প্রচারণা চালান মালা। এ ছাড়া ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে রাজনীতিতে তার পদচারণ আগে থেকেই।পঁচিশ বছরের ইউপি চেয়ারম্যান বাবার রাজনৈতিক পরিবারে বেড়ে ওঠা, বিয়ের পর স্বামীর রাজনীতির খাতিরে ইউনিয়নের রাজনীতিতে আগে থেকেই তিনি দক্ষ। তাই নির্বাচনে বিজয়ী হতে তেমন একটা বেগ পেতে হয়নি তার।তাই বিজয়ীও হয়েছেন অনেক ভোটের ব্যবধানে।

এ বিষয়ে সোহেলী পারভীন মালা জানান, গত বছরের চার জুলাই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয় তার স্বামী মৃত্যুবরণ করেন। তার মৃত্যুর পর মনে হয়েছে এলাকার লোকজন তাদের অভিভাবক হারিয়েছেন। তাদের আবদারে একপর্যায়ে নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। সোহেলী পারভীন মালা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, ‘তিনি মনোনয়ন দিয়ে আমাকে সম্মানিত করেছেন।’

মালা আরো বলেন,’বরগুনা জেলায় আমি দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রথম নারী চেয়ারম্যান হিসেবে সাধারণ মানুষের প্রতি আমার দায়িত্ব এবং কর্তব্য অনেক বেশি। তাই আমি আমার দায়িত্ব এবং কর্তব্য যথাযথভাবে পালনের জন্য সবার কাছে দোয়া চাই।’

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ