১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
আমি বাচতে চাই, দয়া করে আমাকে বাঁচান- শিশু ইউসুফ এবার ভোল পাল্টালেন হাফিজুর রহমান সিদ্দিকী পিরোজপুরে আন্তঃ গরু চোর দলের ৪ সদস্য গ্রেফতার চল্লিশ কাহনিয়া প্রবাসী কল্যাণ সমিতির মানবিক কাজে মুগ্ধ গ্রামবাসী বরিশালে বাস-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ কিশোর নিহত পটুয়াখালীতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানে ঢুকে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামের ২৯তম মৃত্যুবার্ষিকীতে এসটিএস হাসপাতালের ২ দিন ব্যাপী ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প করোনায় আরও ৩৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১ হাজার ৯০৭ ভোলায় মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি, পূজা পরিষদের সভাপতি আটক ইন্দুরকানীতে নয় বছরেও সেতুতে নেই ল্যাম্পপোষ্ট, পথচারীদের ভোগান্তি

র‌্যাবের হাতে কিশোর গ্যাংয়ের মদদদাতা অস্ত্র ও চাঁদার টাকাসহ গ্রেফতার!

হারুন অর রশিদ,
আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি।
বরগুনার আমতলীতে চাঁদাবাজির অভিযোগে নাঈম ইসলাম (২৪) নামে এক কিশোর গ্যাংয়ের মদদদাতাকে দেশীয় অস্ত্র (ছোরা) ও চাঁদার টাকাসহ আটক করে পুলিশে হস্তান্তর করেছে র‌্যাব-৮ সদস্যরা।(মঙ্গলবার) দুপুরের পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

র‌্যাব-৮ পটুয়াখালী ক্যাম্প সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার খেকুয়ানি বাজার সংলগ্ন মুন্সী জিকঝাক নামক একটি ইট ভাটার মালিক বদিউল আলম বাদল মুন্সীর নিকট আমতলী পৌরসভার মহিলা কলেজ রোডের বাসিন্ধা মনিরুল ইসলামের পুত্র কিশোর গ্যাংয়ের মদদদাতা মোঃ নাইম ইসলাম (২৪) বিভিন্ন সময় চাঁদা দাবি করে আসছিল। বিষয়টি তিনি লিখিতভাবে র‌্যাব সদস্যদের অবহিত করেন।

গতকাল সোমবার (৩০ আগস্ট) ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে পুনঃরায় ভূক্তভোগী বদিউল আলম বাদল মুন্সীর ব্যবহৃত মুঠোফোন কল দেয় কিশোর গ্যাংয়ের মদদদাতা মোঃ নাইম ইসলাম। ভূক্তভোগী ভাটা মালিক কৌশল করে অভিযুক্ত চাঁদাবাজ নাঈম ইসলামকে সন্ধ্যার পরে উপজেলা পরিষদ গেটে তার সাথে দেখা করে চাঁদার টাকা নিতে আসতে বলে বিষয়টি র‌্যার সদস্যদের অবহিত করেন।

প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে কোম্পানী অধিনায়ক লেঃ কমান্ডার মোঃ শহিদুল ইসলাম (এস) পিসিজিএমএস, বিএন এর নেতৃত্বে ওই দিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলা পরিষদের সামনের ব্রাঞ্চ সড়ক থেকে চাঁদাবাজ নাইম ইসলামকে আটক করে। এসময় তার কাছ থেকে চাঁদার ২০ হাজার টাকা ও ১টি দেশীয় অস্ত্রসহ (ছোরা) উদ্ধার করে জিজ্ঞাষাবাদের জন্য পটুয়াখালী ক্যাম্পে নিয়ে যায়। জিজ্ঞাষাবাদ শেষে ওই রাতেই আটক নাইম ইসলামকে আমতলী থানায় হস্তান্তর করে। পরে র‌্যাবের সহায়তায় ভূক্তভোগী ভাটা মালিক বদিউল আলম বাদল মুন্সী বাদী হয়ে চাঁদাবাজ নাইম ইসলামের নামে আমতলী থানায় একটি চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেন।

আজ (মঙ্গলবার) পুলিশ তাকে ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে দুপুরের পরে উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করেছে। আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ সাকিব হোসেন তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

র‌্যাব-৮ পটুয়াখালী ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক লেঃ কমান্ডার মোঃ শহিদুল ইসলাম (এস) বলেন, চাঁদাবাজির অভিযোগের ভিত্তিতে কিশোর গ্যাংয়ের মদদদাতা নাঈম ইসলামকে দেশীয় অস্ত্র (ধারালো ছুরি) ও নগদ ২০ হাজার টাকাসহ আটক করে পুলিশে হস্তান্তর করেছি। তিনি আরো বলেন, কিশোর গাংয়ের মদদদাতা নাইম ইসলামের বিরুদ্ধে মারামারি ও চাঁদাবাজি করার মতো একাধিক ঘটনা বিভিন্ন জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। এ ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সহযোগীদের গ্রেফতারে র‌্যাব-৮ সচেষ্ট আছে।

আমতলী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রনজিত কুমার সরকার মুঠোফোনে বলেন, চাঁদাবাজ নাঈমকে র‌্যাব- ৮ পটুয়াখালী ক্যাম্পের সদস্যরা আটক করে আমাদের কাছে হস্তান্তর করেছে। তার বিরুদ্ধে আমতলী থানায় চাঁদা ও অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটক নাইমকে ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আজ দুপুরে উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ