২৮শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
রাজাপুরের গালুয়ায় বৃদ্ধ স্বামী স্ত্রীকে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা  বিতর্কিত শিক্ষা ব্যাবস্থা বাতিল ও পাঠ্যবই সংশোধনের দাবিতে মানব বন্ধন শিক্ষার গুরুত্ব কেবল আ’লীগ সরকারই দিচ্ছে-পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আওয়ামীলীগ ও কমিনিউটি পুলিশিং এর ওয়ার্ড সেক্রেটারী গ্রেফতার বরিশালে দুই নারীর মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে পুলিশ ! বরিশালে ট্রলির নিচে পড়ে ইজিবাইকের চালক নিহত তালতলীতে ২৪টি পরিবারের খোলা আকাশের নীচে জীবনযাপন কলাপাড়া জম কালো আয়োজনে রিপোর্টার্স ক্লাব'র ৭ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন। পবিত্র কোরআন শরিফ পোড়ানোর প্রতিবাদে তালতলীতে বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত বরিশালে পাংশা গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ১

আজ (২৫ অক্টোবর) মধ্যরাত থেকে ইলিশ শিকার শুরু

অনলাইন ডেস্ক: ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে নদীতে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ভোলার ২ লাখেরও বেশি জেলে।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) মধ্যরাত থেকে ইলিশ ধরার উৎসবে নেমে পড়বেন তারা।

এ জন্য তারা আগে থেকেই জাল ও নৌকাসহ ইলিশ ধরার অন্যান্য সরঞ্জাম প্রস্তুত করেছেন।
এদিকে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে ফের সরগরম হয়ে উঠবে মৎস্যঘাটগুলো। খুলবে বন্ধ থাকা বরফকল। জেলে পল্লিও হয়ে উঠবে মুখর। জেলে, মৎসৗজীবী ও আড়ৎদারদের হাঁকডাকে মুখরিত হয়ে উঠবে আড়ৎগুলো।

রোববার (২৪ অক্টোবর) দুপুরের পর থেকে ভোলার বিভিন্ন মাছ ঘাট ঘুরে দেখা গেছে তুলাতলী, নাছির মাছি, ভোলার খাল, ইলিশা ও শিবপুরসহ বিভিন্ন ঘাটে ঘাটে জেলেদের মাছ ধরার প্রস্তুতি। কেউ জাল বুনছেন, কেউ নৌকায় রঙ দিচ্ছেন কেউ বা নৌকা-ট্রলার মেরামত করছেন। কখনো নদীতে মাছ শিকারে নামবেন, এমন অপক্ষা জেলেদের। অবশেষে প্রতীক্ষার পালা শেষ করে এখন নদীতে নামতেই প্রস্তুত তারা।

এ বিষয়ে কথা হয় তুলাতলী ঘাটের জেলে বশির মাঝি ও হারনসহ অন্যদের সঙ্গে। তারা বলেন, এতোদিন মেঘনা-তেতুলিয়া নদীতে মাছ ধরা বন্ধ ছিল, ধার-দেনা করে চলেছি, অনেক কষ্টে দিন কেটেছে। এখন মাছ ধরা শুরু হচ্ছে আবার আমরা নদীতে মাছ শিকারের নামবো। এতে কাঙ্ক্ষিত পরিমাণ মাছ পেলে বিগত দিনের ঋণ পরিশোধ হবে।

ভোলা জেলা সমিতির সভাপতি মো. এরশাদ ফরাজি বলেন, ইলিশ ধরার নিষেধাজ্ঞা থাকায় অনেক জেলে নদীতে যায়নি, সরকারের অভিযান মেনেছে। এতোদিন জেলেরা অপেক্ষা ছিল কবে থেকে মাছ ধরার শুরু হবে। তাদের সেই প্রতীক্ষার পালা শেষ, তারা এখন নদীতে নামার প্রস্তুতি নিয়েছেন। জাল নৌকা নিয়ে জেলেরা নেমে পড়বেন মাছ শিকারে। নিবন্ধিত অনেক জেলেই এবার জেলে পুনর্বাসনের চাল পেয়েছেন।

জেলা মৎস্য বিভাগ জানিয়েছে, গত ২১ দিনে জেলায় ৩৪২টি অভিযান পরিচালিত হয়েছে। এর মধ্যে ৩৯৯ জেলের জেল জরিমানা করা হয়েছে। এর মধ্যে ১১৮ জেলের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড এবং ২৮১ জনের জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও ৭ লাখ ৫৭ হাজার মিটার জাল এবং ২ হাজার ১৫৩ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়েছে। জরিমানা আদায় করা হয়েছে। ১১ লাখ ৬৩ হাজার ৫০০ টাকা।
জেলে মৎস্য কর্মকর্তা এসএম আজহারুল ইসলাম বলেন, ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে ৪ অক্টোবর থেকে ২দিন ইলিশ ধরার বন্ধ ছিল। ২৬ অক্টোবর থেকে মাছ ধরার শুরু হচ্ছে। এখন আর জেলেদের মাছ ধরতে কোনো বাধা নেই। মৎস্য বিভাগের অভিযানে নদীতে ইলিশের উৎপাদন বাড়বে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ