৭ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শায়েস্তাবাদ এলাকায় নির্বাচনী সহিংসতায় প্রার্থী ও তার বাবাকে কুপিয় যখম

শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নের নির্বাচনী সহিংসতায় প্রার্থী সহ ২ জন আহত হয়েছে। গতকাল রাত সাড়ে এগারোটায় ফরাজী বাড়ির সামনে বসে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে শেববাচিমে ভর্তি করে। আহতরা হলেন শায়েস্তাবাদ ৪ নং ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন খান স্বপন (৪০) ও তার বাবা শাহ আলম খান। (৬০)। বর্তমানে তারা শেবাচিমের পুরুষ সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে।জানাগেছে নির্বাচনী প্রচারণা শেষে বাড়ি ফেরার পথে প্রতিপক্ষ মোরক মার্কার মেম্বার প্রার্থী মনজুরুর রহমান মঞ্জুর বাড়ির সামনে থেকে আসার পথে প্রতিপক্ষরা পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায়। আহত সূত্র আরও জানায় রিয়াজ উদ্দিন খান স্বপন এর নির্বাচনী ফিল্ড ভালো থাকায় তাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের ভয়-ভীতি দেখাচ্ছে প্রতিপক্ষ মনজুরুর রহমান মঞ্জু ও তাঁর সহযোগীরা। তাকে কাবু করতে না পারায় পরিকল্পিতভাবে তার উপরে হামলার ঘটনা ঘটা। আহত সূত্র আরও জানায় তাদের কর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা চালাচ্ছে মনজুর রহমান মঞ্জু। শায়েস্তাবাদ ৪ নং ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন স্বপন খানের মার্কা তালা ও মনজুরুর রহমান মঞ্জুর মার্কা। এদিকে গতকাল দিনভর রিয়াজ উদ্দিন খান স্বপন তার নির্বাচনী প্রচারণা চালালে প্রতিপক্ষ মনজুরুর রহমান মঞ্জু তার অবস্থান খারাপ দেখে এই হামলার ঘটনা চালায়। রাত সাড়ে এগারোটায় রিয়াজ উদ্দিন খান স্বপন প্রচারণা শেষে বাড়ি ফেরার পথে শায়েস্তাবাদ ফরাজী বাড়ির সামনে বসে প্রতিপক্ষ মোরক মার্কার মেম্বার প্রাথী মনজুরুর রহমান মঞ্জু, কামাল প্যাদ, আফ্রিদি প্যাদা, আক্তার সহ অজ্ঞাত ৮/১০ জন ধারালো চাপাতি রামদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে শুরু করে।এতে লোকজন দিকবিদিক ছুটাছুটি করলে প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন খান স্বপন ও তার বাবা শাহ আলম কে একা পেয়ে মারধর শুরু করে। পরে তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করে। বর্তমানে আহতরা শেবাচিমে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানায়।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ